1. khaircox10@gmail.com : admin :
কক্সবাজারবাসীকে 'খোলা চিঠি'তে যা বললেন মদিনা প্রবাসী জামাল উদ্দিন - coxsbazartimes24.com
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কক্সবাজারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল দুর্গতদের মাঝে কোস্ট ফাউন্ডেশনের শুকনো খাবার বিতরণ দুই শতাধিক তরুনকে বন্যপ্রাণীর ক্ষতি না করার শপথ করালেন প্রধান বন সংরক্ষক ঈদগাঁও বাজারে হিটস্ট্রোকে মারা গেলেন ব্যাংক ম্যানেজার কুতুবদিয়ায় হত্যা চেষ্টা মামলার প্রধান আসামি শাহেদুল ইসলাম কারাগারে এভারকেয়ার হসপিটালের শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাহেরা নাজরীন এখন কক্সবাজারে ঈদগাঁও উপজেলা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর প্রচারণায় বাধা, হুমকি-ধমকির অভিযোগ কোস্ট ফাউন্ডেশনের ‘আরএইচএল’ প্রকল্পের পরিচিতি সভা চেইন্দা সমাজ কল্যাণ পরিষদের  আহ্বায়ক কমিটি গঠিত জলবায়ু উদ্বাস্তুদের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করব -মুজিবুর রহমান উখিয়ার সোনারপাড়ায় বীচ ক্লিনিং ক্যাম্পেইন সম্পন্ন

কক্সবাজারবাসীকে ‘খোলা চিঠি’তে যা বললেন মদিনা প্রবাসী জামাল উদ্দিন

  • আপডেট সময় : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ৭৩৭ বার ভিউ

সম্মানিত কক্সবাজারবাসী

আসসালামু আলাইকুম।
আশাকরি করোনা মহামারিতে কোন প্রকারে আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন।

দীর্ঘ তিন মাসের বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেয়ে প্রিয় নবীর মসজিদে নববীতে গিয়ে প্রাণখুলে কক্সবাজার তথা দুনিয়ার সকল মানুষের জন্য দোয়া করেছি। আল্লাহ যাতে করোনা ভাইরাসসহ সকল মুসিবত থেকে আমাদের মুক্তি দেন।

প্রবাসে থাকলেও প্রিয় মাতৃভূমি ও কক্সবাজার নিয়ে চিন্তার কোন শেষ নাই।

বিশ্বের অন্যতম পর্যটন নগরী হবার পরও অপ্রতুল সুযোগ সুবিধা লজ্জা ছাড়া আর কিছু নয়। যদিও বর্তমান সরকারের মেগাপ্রকল্প আশার আলো ছড়ায়। একটি মাত্র সরকারী হাসপাতালে আইসিইউ, সেন্ট্রাল অক্সিজেন নাই। একটি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নাই। শিশুদের বিনোদনের  পার্ক নাই। পর্যটন নগরীর বর্জ্য অপসারণে আধুনিক ব্যবস্থা নাই। ড্রেনেজ ব্যবস্থা অপ্রতুল। সঠিক গাড়ি পার্কিং নাই। বলতে গেলে গর্ব করার মত আল্লাহর দান সীবিচ ছাড়া আমাদের কিছুই নাই। চারিদিকে সবাই নেতা আর নেতা। কাজের চেয়ে রাজনীতি, দানের চাইতে ফটোসেশান বেশি।

স্বাধীনতার ৫০টি বছর পর এমন অবহেলিত জেলা বাংলাদেশের কোথাও আছে কি না আমার জানা নাই। সরকারের নিকট থেকে আমাদের অধিকার আদায় করার দায়িত্ব কি সাধারণ জনগণের? নাকি যারা নেতা, ভিআইপি মর্যাদা নিয়ে বুক ফুলিয়ে চলে, তাদের?

১৯৯৬-৯৭ সালের কথা। আমি তখন সরকারী কলেজের ছাত্র। দেশের অনেক কলেজে অর্নাস কোর্স চালু থাকলেও কক্সবাজার সরকারি কলেজে ছিল না। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী কক্সবাজার আসলেন। কলেজ সংসদের পক্ষে দাবি পেশ করা হলো। তিনি ‘না’ করে দিলেন। ছাত্রদের আন্দোলন আর প্রফেসর সমীর কুমার চক্রবর্তী স্যারের প্রচেষ্টায় সফলতা এসেছিল। যদিও একটি পক্ষ বিরোধীতা করেছিল।

কথাহল- আমাদের পিছিয়ে থাকার কারণ কি? নেতৃত্ব দেওয়া নেতাদের অনৈক্য আর লেজুড়ভিত্তিক রাজনীতি। সংসদ সদস্য যে দলেরই হউক না কেন, অধিকার আদায়ে আমরা একসাথে কাজ করতে পারি না। ভাল কাজে আগামীতে সকল দলের নেতাদের এক টেবিলে বসতে হবে।

মাননীয় নেতৃবৃন্দ, দেশের এক প্রান্তে বসবাসের কারণে ইচ্ছে করলেও আমরা মুসিবতে রাজধানীতে গিয়ে সুযোগ সুবিধা নিতে পারি না। তাই মুখে নয়, কাজে হাত দিয়ে আপনাদের দায়িত্ব পালন করুন। অর্থসম্পদ প্রচুর থাকলেও উন্নত সুযোগ সুবিধা নিতে বাহিরে যাওয়া যায় না, তা নিজ চোখে দেখালেন আল্লাহ। তরুন প্রজন্ম সামান্য অক্সিজেনের অভাবে মারা যাওয়ার দৃশ্য আপনাদেরকে লজ্জিত না করলেও আমরা লজ্জা পাই। দেশের অন্যান্য অঞ্চলের উন্নয়নের মূল কারণ নেতাদের ভূমিকা। জাতীয় রাজস্ব আয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে কক্সবাজারের। তাই আমাদের অধিকার আদায়ে আপনাদের ভূমিকা আরও মজবুত হওয়া দরকার।

পরিশেষে মাননীয় সংসদ সদস্যবৃন্দের প্রতি আবেদন, সকল রাজনৈতিক দলের নেতাদের সাথে সমন্বয় করে কক্সবাজারের চলমান সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসুন। দলাদলি করার সময় নাই। এক টেবিলে বসুন। এক কথায় আসুন।

ক্ষণিকের পৃথিবীতে এমন কিছু কাজ করুন, যাতে মৃত্যুর পর কক্সবাজারবাসী আপনাদের মনে রাখে। মানুষ উপকৃত হয়।

মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন
সেক্রেটারী, কক্সবাজার মাদনি ফোরাম
মদিনা আল মনোয়ারা, সৌদি আরব।

খবরটি সবার মাঝে শেয়ার করেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সব ধরনের নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2020 coxsbazartimes24
Theme Customized By CoxsTech